কেবল হেয়ার প্যাক ব্যবহার করলেই যে চুল পড়া কমে যাবে এমন নয়।

রূপচর্চা সাজগোজ

দৈনিক সত্যেরবাণী   : সাজিয়া আফ্রিন লিমি : স্বাস্থ্যোজ্জ্বল ঝলমলে চুলের জন্য পুষ্টিকর খাবারও ভীষণ প্রয়োজনীয়। চুলের বৃদ্ধি দ্রুত করতেও পাতে রাখা চাই নির্দিষ্ট কিছু খাবার।

 

অনেক সময়ই চুল পড়ে আয়রনের ঘাটতি থাকলে। পালং শাক আয়রনে ভরপুর। এছাড়াও রয়েছে সেবাম, যা চুলের ন্যাচারাল কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে। এতে থাকা ওমেগা থ্রি অ্যাসিড, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম আর পটাশিয়াম স্বাস্থ্য ভালো রাখার পাশাপাশি যত্নে রাখে চুল।

গাজরে রয়েছে ভিটামিন এ, যা চুলের গোড়ায় পুষ্টি জোগায়। ফলে চুল ভালো থাকে।

মিষ্টি আলুতেও বিটা ক্যারোটিন থাকে, যা চুলের গোড়া মজবুত রাখে।

তেলযুক্ত মাছেও ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে প্রচুর পরিমাণে। শুধু স্যামন-টুনার মতো দামি সামুদ্রিক মাছ নয়, রুইয়ের মতো বড় মাছও ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের ভালো উৎস।

 

হেয়ার প্যাকে দই ব্যবহার করি আমরা। চুল ভালো রাখতে দই খাদ্যতালিকাতেও রাখুন। দইয়ে ভিটামিন বি ফাইভ আর ভিটামিন ডি থাকে। চুলের ফলিক্‌ল গ্রোথে সাহায্য করে এই ভিটামিন। ক্যালসিয়ামও থাকে দইয়ে, যার গুণ একই।  চুল ভালো রাখতে ডিম খান নিয়মিত। ডিমে রয়েছে প্রোটিন আর বায়োটিন। হেয়ার ফলিক্‌ল তৈরি হতে প্রোটিন খাওয়া দরকার। আর কেরাটিন নামে এক ধরনের বিশেষ হেয়ার প্রোটিন রয়েছে, যা তৈরি হতে ডায়েটে বায়োটিন থাকা জরুরি। জিঙ্ক এবং সেলেনিয়ামের মতো পদার্থও রয়েছে ডিমে, যা চুল ভালো রাখে।

SHARE

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *